ভাই সুশান্তকে স্মরণে তিন দিদি, সোশ্যাল মিডিয়ায় আবেগঘন পোস্ট

নিজস্ব প্রতিবেদন: বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুেতর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী। গত বছর ১৪ জুন, সুশান্তের ফ্ল্যাট থেকে মুম্বই পুলিশ উদ্ধার করেন অভিনেতার ঝুলন্ত দেহ। স্বাভাবিক ভাবেই এদিন তাঁর অসংখ্য ভক্তের মনে আরও বেশি করে মনে আসছে প্রিয় অভিনেতার কথা। সুশান্ত তাঁর স্বল্প জীবনের কেরিয়ারে হিট ধারাবাহিক আর হিট ছবি দর্শকদের উপহার দিয়েছেন। অভিনেতার অসময়ে চলে যাওয়ার পর অসংখ্য সিনেমাপ্রেমী আক্ষেপ করেছেন। ভালো অভিনেতাকে হারানোর পাশাপাশি একজন উঠতি তারকাকেও হারিয়েছে বলিউড। তবে অভিনেতার এই আকস্মিক মৃত্যু শুধুই কি আত্মহত্যা না খুন তা নিয়ে এখনো ধোঁয়াশা আছে।

অভিনেতার মৃত্যু তাঁর পরিবার এখনো মেনে নিতে পারেননি। প্রতিদিন নানান ভাবে স্মৃতিচরণ করে থাকেন পরিবারের সকলে। সুশান্তের চার দিদি প্রিয়াঙ্কা, মীতু এবং নীতু ভারতে থাকেন। তাঁর দিদি শ্বেতা সিং কৃতী এখন মার্কিনমুলুকে থাকেন। এই মাসের শুরুর দিকে শ্বেতা তার সোশ্যাল মিডিয়া ফলোয়ারদের জানিয়েছিলেন, ভাইয়ের মৃত্যুদিনে তিনি একা থাকতে চান৷ ভাইয়ের কথা মনে করে, তাঁর স্মৃতি হাতড়ে এই দিনটি উদযাপন করতে চান মৃত্যু বার্ষিকী৷

প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীর দিন তাঁর বাকি তিন দিদি প্রিয়াঙ্কা সিং, মিতু সিং এবং নীতু সিং একত্র হয়েছিলেন আদুরে ভাইকে স্মরণ করতে। প্রিয়াঙ্কা ইনস্টাগ্রামে ভাইকে স্মরণ করার একটি আবেগঘন মুহূর্তের ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করেন। সঙ্গে ভাইকে উদ্দেশ্য করে লম্বা একটা নোট লেখেন। প্রিয়াঙ্কার শেয়ার করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে, সুশান্তের ফটোফ্রেমের চারিদিক সাদা ফুল দিয়ে সাজানো। অভিনেতার ছবিটা একটা টেবিলের ওপর রাখা।

প্রিয়াঙ্কা লেখেন, তাঁর একমাত্র ভাই সুশান্ত চলে যাওয়ার পর তাঁর জীবন একেবারে বদলে গেছে। বেঁচে থেকে নিজেকে অপরাধী বলে মনে হচ্ছে তাঁর।তিনি আরো লেখেন, ‘সুশান্ত ছাড়া জীবন আগের মতো নেই। মা চলে যাওয়ার পরে, সুশান্তে ভালবাসার প্রতি শ্রদ্ধা হিসাবে তাঁদের জীবনকে সার্থক করার অনুপ্রেরণা পেয়েছিলেন। ভাইয়ের অনুপস্থিতি পুরো পরিবারকে হতাশ করছে। আবেগের এখন তাঁদের অবিরাম সঙ্গী, অসাড়তা, অসহায়ত্ব, হতাশা, যন্ত্রণা ও ক্রোধ থেকে শুরু করে এসব’।

তিনি আরো লেখেন, ‘শারীরিক ভাবে হয়তো সুশান্ত এই পৃথিবীতে নেই, তবে পরিবারের জীবনের প্রতিটা মুহূর্তের সঙ্গে তুমি জড়িত। জীবনের প্রতিটি স্পন্দন হাঁটাচলা, ঘুমানো, স্বপ্ন দেখা তাঁদের মনে সুশান্ত প্রাণবন্ত। ভাইয়ের উপস্থিতি যেমন গুরুত্বপূর্ণ ছিল। তেমনি ভাই সত্যিই অমর হয়ে আছ.. চিরজীবনের মতো। এবং হ্যাঁ, সুশান্তকে ছাড়া এই জগতে নিজেকে খুঁজে পাওয়া, নিজের বেঁচে থেকে অপরাধবোধে ভুগছেন’। প্রিয়াঙ্কার এই পোস্ট দেখে অনুগামীরাও দুঃখ প্রকাশ করেন।

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

এছাড়াও পড়ুন

সামান্য সুজি আর দুধ দিয়ে বানিয়ে নিন স্পেসাল তুলতুলে নরম মজাদার মিষ্টি, স্বাদ হবে হেব্বি ভিডিও সহ বৌদির হতে রেসিপি!!

নিজস্ব প্রতিবেদন: মিষ্টি পাগল মানুষদের জন্য আজকের এই রেসিপি। আপনি কি মিষ্টি খেতে খুব পছন্দ …

Leave a Reply